More

    গাংনীতে আ.লীগের প্রার্থীর জয়, ৪ মেয়রপ্রার্থীর নির্বাচন বর্জন

    অবশ্যই পরুন

    পটুয়াখালীতে ১৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড

    উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে পটুয়াখালী সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। বাতাসের চাপ আগের চেয়ে কিছুটা...

    স্বাস্থ্যবিধি না মানায় কলাপাড়ায় ৩৪ জনকে অর্থদন্ড

    পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় লকডাউন অমান্য করায় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৩৪ জনকে অর্থদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার বেলা সাড়ে ১১...

    বরিশালে অতিভারি বৃষ্টির আভাস: সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

    বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি আরও শক্তি সঞ্চয় করে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এটি বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের (খুলনা, সাতক্ষীরা ও যশোর) স্থলভাগে...

    ব্রিজ না করেই লাখ টাকা লোপাট: সাঁকোর ছবি ভাইরাল

    উদয়কাঠি ইউনিয়নের বাসিন্দা, বরিশাল জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এবং বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা...

    মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ (নৌকা) প্রার্থী আহম্মেদ আলী মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৯ হাজার ৪৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী (জগ) ও বর্তমান মেয়র আশরাফুল ইসলাম পেয়েছেন দুই হাজার ৬৫১ ভোট। এদিকে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে দুপুরে বিএনপির প্রার্থীসহ চার প্রার্থী ভোট বর্জন করেন।

    বর্জনকারী প্রার্থীরা হলেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আছাদুজ্জামান বাবলু, স্বতন্ত্রপ্রার্থী ও বর্তমান মেয়র এবং জেলা যুবলীগের সদ্য অব্যাহতিপ্রাপ্ত যুগ্ম আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম, আনারুল ইসলাম ও ইশা আন্দোলনের আবু হুরাইরা।

    গাংনী পৌর মেয়র পদে পাঁচ জন, কাউন্সিলর পদে ৪০ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০ প্রার্থী ভোট যুদ্ধে অংশ নেন। ৯টি কেন্দ্রের ৬১টি কক্ষে ভোটগ্রহণ হয়। মোট ভোটারের সংখ্যা ২০ হাজার ৩৫৭ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ৯ হাজার ৭৬০ জন এবং মহিলা ভোটারের সংখ্যা ১০ হাজার ৫৯৭ জন। এর মধ্যে ১২ হাজার ৯১৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

    নির্বাচন বর্জনকারীরা অভিযোগ করেন, ভোটকেন্দ্র ও আশপাশের এলাকায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর লোকজন থাকলেও সরকার দলীয় প্রার্থীর সমর্থকরা ভোটকেন্দ্র দখল করে নেয়। নৌকা প্রার্থীর ভোটারগণ ভোটকেন্দ্রে নির্বিঘ্নে ভোট দিলেও অন্যান্য প্রার্থীর সমর্থকরা ভোটকেন্দ্রে যেতে পারেননি। বিভিন্ন স্থানে তাদের বাধা দেওয়া হয়েছে। আবার ভোটকেন্দ্রে ভোটারের আঙুলের ছাপ নিয়ে পোলিং অফিসার সরকার দলীয় প্রার্থীর নৌকা মার্কাতে ভোট দেন বলে অভিযোগ করেন তারা। প্রশাসন ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে বার বার অভিযোগ দিয়েও কোনও ফল পাননি বলে দাবি করেছেন প্রার্থীরা।

    প্রার্থীরা বলেন, ইভিএমে যে কারচুপি করা যায়, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত গাংনী পৌরসভা নির্বাচন।

    অপরদিকে নৌকা প্রতীকের আহম্মেদ আলী বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত জেনে চার প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছেন।

    জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা আহমেদ আলী জানান, কোনও অনিয়ম পরিলক্ষিত হয়নি। একটি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

    উল্লেখ্য, গত নির্বাচনে তৎকালীন মেয়র আহম্মেদ আলী বর্তমান মেয়র আশরাফুল ইসলামের কাছে পরাজিত হন। এবার বর্তমান মেয়র হেরে গেলেন সাবেক মেয়রের কাছে।

    সম্পর্কিত সংবাদ

    সর্বশেষ সংবাদ

    পটুয়াখালীতে ১৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড

    উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে পটুয়াখালী সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। বাতাসের চাপ আগের চেয়ে কিছুটা...