More

    চীনকে সরিয়ে খেলনার বাজার স্থানীয় উৎপাদনকারীদের দখলে

    অবশ্যই পরুন

    পটুয়াখালীতে ১৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড

    উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে পটুয়াখালী সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। বাতাসের চাপ আগের চেয়ে কিছুটা...

    স্বাস্থ্যবিধি না মানায় কলাপাড়ায় ৩৪ জনকে অর্থদন্ড

    পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় লকডাউন অমান্য করায় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৩৪ জনকে অর্থদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার বেলা সাড়ে ১১...

    বরিশালে অতিভারি বৃষ্টির আভাস: সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

    বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি আরও শক্তি সঞ্চয় করে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এটি বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের (খুলনা, সাতক্ষীরা ও যশোর) স্থলভাগে...

    ব্রিজ না করেই লাখ টাকা লোপাট: সাঁকোর ছবি ভাইরাল

    উদয়কাঠি ইউনিয়নের বাসিন্দা, বরিশাল জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এবং বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা...

    এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত কর্তাব্যক্তিরা মনে করেন, খেলনা শিল্পের সার্বিক বাজার অন্তত ৬ হাজার কোটি টাকার। দেশীয় খেলনা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো ইতোমধ্যেই মোট মার্কেট শেয়ারের ৮০ শতাংশ কব্জা করে ফেলেছে।

    ফেব্রুয়ারির এক সকালে দেখা গেল ঢাকার উপকণ্ঠ কামরাঙ্গীরচর এলাকায় আট নারী একে-৪৭ রাইফেল নিয়ে ব্যস্ত, যে রাইফেলকে বলা হয় ২১ শতকের সবচেয়ে শক্তিশালী এক মারণাস্ত্র।

    শ্রমিকদের একজন মনি বেগম। তাকে দেখা গেল রাইফেলের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ- পাইপ, স্প্রিং, ম্যাগাজিন লক, ট্রিগার ও গ্যাস টিউব ইত্যাদি নিয়ে পুরোদমে কাজ করতে। বাকিরা ব্যস্ত ছিলেন স্বয়ংক্রিয় একটি স্ক্রুড্রাইভারের মাধ্যমে রাইফেলের ভেতরে ছোট কালো স্ক্রু ঢুকিয়ে দেওয়ার কাজে।

    রাইফেলের গায়ে বড় অক্ষরে লেখা সতর্কবার্তা: ‘মানুষ অথবা প্রাণীর দিকে গুলি ছুঁড়বেন না।’

    এ পর্যন্ত পড়ে কি ভয় পাচ্ছেন? না, ভয়ের কারণ নেই। কারণ দুই ফুট লম্বা এই রাইফেলগুলো আসলে প্লাস্টিকের তৈরি। তবে এই রাইফেলগুলো কিন্তু পুরোমাত্রায় সুসজ্জিত। বাটস্টক, হিটশিল্ড এবং পিস্তলের গ্রিপ বানানো হয়েছে হলুদ রঙে; আর রাইফেলের মূল বডি ও ম্যাগাজিন কালো রঙের।

    শিশুদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি খেলনা এই নকল একে-৪৭ রাইফেল।

    দেশের সবচেয়ে বড় খেলনা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এভারেস্ট টয় ইন্ডাস্ট্রিস লিমিটেড প্রতিদিন ২ হাজার পিস একে-৪৭ রাইফেল উৎপাদন করে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটি অন্যান্য রাইফেল, অ্যাম্বুলেন্স, রেসির কার, বাস ও মোবাইল ফোনের রেপ্লিকা খেলনাও তৈরি করে।

    এভারেস্ট টয় ইন্ডাস্ট্রিস লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী শাহজাহান মজুমদার জানালেন, তাদের মোট খেলনা উৎপাদনের ৬০ শতাংশই রাইফেল বা বন্দুক। প্রতিষ্ঠানটির দুটি ফ্যাক্টরি রয়েছে, যেখানে ৪০০ শ্রমিক কাজ করেন। তারা প্রায় ২০০ প্রকারের খেলনা উৎপাদন করে থাকেন।

    শাহজাহান মজুমদার বাংলাদেশের খেলনা শিল্পের মূল সংগঠন ‘বাংলাদেশ টয় মার্চেন্টস ম্যানুফ্যাকচারারস অ্যান্ড ইমপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশনে’রও সভাপতি।

    শাহজাহান বলেন, ‘বিভিন্ন কোম্পানি বিভিন্ন পণ্যকে গুরুত্ব দেয়, আমরা বন্দুক বেছে নিয়েছি। আগে যখন একে-৪৭ খেলনা রাইফেল চীন থেকে আমদানি করা হতো, দাম পড়তো ২০০ টাকা। আমাদের পাইকারি দামে এটি ৮০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।’

    বাংলাদেশে খেলনা শিল্পে এভারেস্টই একমাত্র কোম্পানি নয়। দশ বছর আগে যেখানে খেলনা শিল্প পুরোপুরি আমদানিনির্ভর ছিল, সেখানে বর্তমানে ছোটবড় ১৫০টি ফ্যাক্টরি এখন খেলনা উৎপাদন করছে। এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত কর্তাব্যক্তিরা মনে করেন, খেলনা শিল্পের সার্বিক বাজার অন্তত ৬ হাজার কোটি টাকার। দেশীয় খেলনা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো ইতোমধ্যেই মোট মার্কেট শেয়ারের ৮০ শতাংশ কব্জা করে ফেলেছে।

    চকবাজারে নিজের পাইকারি খেলনা দোকানের ডেস্কে বসে শাহজাহান জানালেন এই শিল্পের দিন বদলের কথা, ‘আগে যা বিদেশ থেকে আনতে হতো, তা এখন আমরাই বানাচ্ছি। এগুলো সবই চীনা খেলনার নকল। দুই দশক আগেও এসব আমাদের কাছে অজানা ছিল।’

    শাহজাহান এই প্রতিনিধিকে জানান, বাংলাদেশে বর্তমানে দেশীয় পর্যায়ে ১৫০০ ধরনেরও বেশি খেলনা বানানো হচ্ছে।

    কামরাঙ্গীরচরের কারখানায় দেখা গেল, নজরুল ইসলাম নামে এক শ্রমিক ইনজেকশন মোল্ডিং মেশিনের ভেতর থেকে খেলনা অ্যাম্বুলেন্সের নিচের অংশের ছাঁচ টেনে বের করছেন।
    নাজমুল গত তিন বছর ধরে এই ফ্যাক্টরিতে কাজ করছেন। তিনি বলেন, ‘মেশিনে অ্যাম্বুলেন্সের লোয়ার পার্ট বানাতে ৩০ সেকেন্ড লাগে। এক ঘণ্টায় আমরা ১১০ পিস লোয়ার পার্টের ছাঁচ গড়তে পারি।’

    একটি খেলনা বানাতে এর বিভিন্ন অংশ আলাদা আলাদা ছাঁচে দিয়ে বানাতে হয়। কামরাঙ্গীরচরের এই কারখানায় খেলনার বিভিন্ন অংশের জন্য আলাদা আলাদা মোট ১২টি বড় প্লাস্টিক ইনজেকশন মোল্ডিং মেশিন রয়েছে। যেমন, একটি রেসিং কার বানাতে হলে কারখানার কর্মীদের একটি ছাঁচে গাড়ির চাকা, অন্যটিতে উইন্ডশিল্ড, আবার অন্য একটিতে গাড়ির বডি বানাতে হবে।

    সম্পর্কিত সংবাদ

    সর্বশেষ সংবাদ

    পটুয়াখালীতে ১৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড

    উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে পটুয়াখালী সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর বেশ উত্তাল রয়েছে। বাতাসের চাপ আগের চেয়ে কিছুটা...